টাঙ্গাইলের মধুপুরে ১ বোঁটায় ৪০টি লাউ

টাঙ্গাইলের মধুপুরে একটি বোঁটায় ৪০টি লাউ ধরেছে। উপজেলার টিকরী বাস স্ট্যান্ডের চা বিক্রেতা মকবুল মিয়ার লাউ গাছের একটি বোঁটাতে লাউগুলো ধরেছে। চাঞ্চল্যকর লাউ গাছটি দেখার জন্য প্রতিদিন অসংখ্য মানুষ মকবুলের বাড়িতে ভিড় করছে।
দড়িহাতীল গ্রামের দর্শনার্থী আবুল কালাম আজাদ জানান, গাছের একটি বোঁটা থেকে ছোট-বড় ৪০টি লাউ ধরেছে। বিষয়টি খুবই বিস্ময়কর!

বাজারের চাপরা বিক্রেতা মো. আ. রহিম মিয়া জানান, একটা বোঁটায় এতগুলো লাউ ধরে এটা আমার জীবনে প্রথম দেখলাম।

লাউ গাছটির মালিক মকবুল মিয়া জানান, একটি বোঁটায় এতগুলো লাউ ধরায় নরম কাপড় দিয়ে বোঁটা শক্ত করে বেঁধে দিয়েছি। লাউ গাছটি দেখতে অনেক মানুষ আসছে, আবার অনেকে ফোন করে খবর নিচ্ছেন।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা এ কে এম সেলিম রেজা মল্লিক এই লাউ দেখে বলেন, “হরমোনজনিত কারণে অল্প জায়গায় অনেকগুলো লাউ ধরেছে। এটা কোনো অলৌকিক ঘটনা নয়। গাছটিতে স্ত্রী ফুলের সংখ্যা বেশি থাকায় এতগুলো ফল ধরেছে। কখনও কখনও এমনটা হতেই পারে।”
বাংলাদেশে এ রকম কোনো নজির আছে কি না, সে বিষয়ে তিনি তাৎক্ষণিকভাবে কিছু বলতে পারেননি।

মধুপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাহমুদুল হাসান বলেন, “বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তারা ঐ বোঁটার লাউ থেকে বীজ সংরক্ষণ করতে বলেছেন। তারা গবেষণা করবেন।”

মধুপুরের সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মো. আ. বাছেদ, উপ-সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা মো. নূরুল ইসলাম তালুকদার, উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা গুলনাহার বেগম, সুব্রত দেবনাথ, মো. ইমাম হোসেনও লাউগাছটি পরিদর্শন করেছেন।

এই লাউয়ের বীজ সংরক্ষণ করবেন বলে জানিয়েছেন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা বাহাউদ্দিন আহমেদ।