টাকার জন্য কোলের সন্তানকে বিক্রি করলেন বাবা!

এক সপ্তাহ যাবৎ কোলের সন্তানকে হারিয়ে যখন পাগলপ্রায় স্ত্রী রাবেয়া তখন লোকমুখে জানতে পারেন স্বামীর কাণ্ড। পরে রাবেয়া বিষয়টি পুলিশকে জানালে পুলিশ প্রথমে রেজাউলকে আটক করে। মাদকের টাকা জোগাড় করতে স্ত্রীর অগোচরে নিজের দেড় বছরের মেয়ে জান্নাতুল মেহেরাজকেই বিক্রি করে দেন রেজাউল। এ সময় তার কাছ থেকে ইয়াবাও উদ্ধার করা হয়। শেষে রেজাউলের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার সকালে মহেশখালী উপজেলার গ্রাম শিশুটিকে উদ্ধার করে পুলিশ।

রাবেয়া সাংবাদিকদের বলেন, ‘আট দিন আগে আমি অন্যের বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করতে গেলে অজান্তে মেয়ে জান্নাতুল মেহেরাজকে চুরি করে নিয়ে যায় মাদকাসক্ত স্বামী রেজাউল। এরপর অনেক খোঁজাখুঁজি করেও পাচ্ছিলাম না বুকের ধনকে। হঠাৎ বৃহস্পতিবার বিকেলে লোকজনের মাধ্যমে খবর পাই শিশুটিকে মহেশখালীর শাপলাপুরের বারিয়াপাড়ায় এক ব্যক্তির কাছে বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে। রেজাউল ওই ব্যক্তিকে জানিয়েছিল, সে চলার পথে শিশুটিকে কুড়িয়ে পায়। তার কথা বিশ্বাস করে ওই ব্যক্তি শিশুটিকে হেফাজতে নেন। বিনিময়ে রেজাউলকে হাজারখানেক টাকা দেন। ওই টাকা দিয়ে ইয়াবা কিনে সেবন করছে রেজাউল। তখন লোকজনের সহায়তায় পুলিশের কাছে গিয়ে বিস্তারিত জানাই। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে রেজাউলকে ইয়াবাসহ গ্রেফতার করে। আট দিন পর শুক্রবার সকালে পুলিশের সহায়তায় কোলের সন্তানকে উদ্ধার করে নিয়ে আসি।’

চকরিয়া থানার এসআই গাজী মঈন উদ্দিন বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর প্রথমে রেজাউলকে আটক করা হয়। এ সময় তার কাছ পাওয়া যায় ৩৩ পিস ইয়াবা।

থানার ওসি মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, মাদকাসক্ত রেজাউলের নিজের সন্তান চুরি করে বিক্রির ঘটনায় প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। একই সঙ্গে ইয়াবা উদ্ধারের ঘটনায় রেজাউলের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ