Smiley face

মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জল, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি;
বাল্যবিয়ে একটি সামাজিক ব্যাধী। সমাজ থেকে এ ব্যাধী দুর করতে ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র আলহাজ সাইদুল করিম মিন্টু এক ব্যাতিক্রম উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। ছাত্রীদের মাঝে বিনামুল্যে বিতরণ করেছেন বাইসাইকেল।০১.০১.২০১৮ ইং সোমবার বিকেলে ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলার পোড়াহাটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে তিনি বাইসাইকেল বিতরণ করেন। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম, প্রিয়নাথ স্কুল এন্ড কলেজের সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসাইন, রঘুনাথপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রাসেল হোসেনসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।
প্রধান অতিথি সাইদুল করিম মিন্টু বলেন, বাল্যবিয়ে বন্ধে সরকার বিভিন্ন প্রোগ্রাম, প্রকল্প ও কার্যক্রম গ্রহণ ও বাস্তবায়নের কাজ করে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় বাল্যবিয়ে কমে আসবে। সরকার বাল্যবিয়ের বিষয়ে সচেতন হওয়ার কারণে সংশ্লিষ্টরাও এ বিষয়ে সোচ্চার হয়েছে। মাঠপর্যায়ে তারা বাল্যবিয়ে বন্ধে কার্যকর ভূমিকা রেখে চলেছে। বাল্য বিবাহ রোধে সবচেয়ে বেশি কার্যকরী ভূমিকা পালন করবে সচেতনা ও শিক্ষা। কেননা যখন সবাই সচেতন হবে তখন বাল্য বিবাহ রোধে সবাই ভূমিকা রাখতে পারবে। এছাড়া শিক্ষা হলো নারীদের জন্য অপরিহার্য। শিক্ষিত নারী-ই পারে সমাজের সকল অনিয়মেয় বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে। নারীরা যখন তাদের অধিকার আদায়ের ব্যাপারে সচেতন হবে তখন আশে পাশের মানুষগুলো অন্তত নড়েচড়ে বসবে। কোন কিছু চাপিয়ে দিতে তারা ভাববে। এখন সময় এসেছে নারীদের নিজেদের অধিকার বুঝে নেয়ার। বাল্য বিবাহ রোধে নারীদের কেই কার্যকরী ভূমিকা রাখতে হবে। পরিবারে বোঝা না হয়ে নিজেকে শিক্ষিত ও স্বাবলম্বী করতে হবে। মোটকথা বাল্যবিবাহ বন্ধে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে এবং সচেতন করতে হবে পিতা-মাতাকে, বিভিন্ন পদক্ষেপ হাতে নিতে হবে। তা হলে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ করা যাবে।

LEAVE A REPLY