ঢাকা: জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে যুবলীগের উদ্যোগে আয়োজিত যুব সমাবেশে শপথ গ্রহণ করা হয়েছে। এতে উঠে এসেছে যার যার অবস্থান থেকে জঙ্গিবাদ দমনে কার্যকরী ভূমিকা রাখার বিষয়টি।

বুধবার (১৩ জুলাই) ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ আয়োজিত এ সমাবেশ থেকে শপথ গ্রহণ করা হয়। সমাবেশে দেশব্যাপী প্রতিরোধ আন্দোলন গড়ে তুলে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদকে চিরতরে রুখে দাঁড়ানোর শপথ নেওয়া হয়। যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী শপথ বাক্য পাঠ করান।

সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষি মন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‌আজ বাংলাদেশের অস্তিত্বের প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। এ জন্য জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ রুখবো, এটাই আজকের শপথ।

খালেদা জিয়ার কালো হাত ধ্বংস হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

এর আগে, বিকেল ৩টায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণের বিভিন্ন এলাকা থেকে শত শত যুবলীগ নেতাকর্মী, সমর্থক ব্যানার নিয়ে মিছিল করে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এসে সমবেত হন।

সমাবেশে শপথ বাক্যে বলা হয়, ‘আমরা জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত এবং রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার দৃঢ় নেতৃত্বে আস্থাশীল বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের নেতা ও কর্মীরা দৃঢ় চিত্তে শপথ করছি যে, আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশকে সামাজিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিকভাবে অস্থিতিশীল করতে সাম্প্রতিক সন্ত্রাসী ও উগ্র ধর্মাদ্ধ জঙ্গি তৎপরতার বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দেশব্যাপী প্রতিরোধ আন্দোলন গড়ে তুলবো। আমরা আরও শপথ করছি যে, রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার বিশ্ব শান্তির দর্শন ‘জনগণের ক্ষমতায়ন’ সুদৃঢ় করার মাধ্যমে এ দেশ থেকে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদকে চির তরে মূল উৎপাটন করবো’।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হারুণ অর রশিদ, প্রধানমন্ত্রীর এপিএস সাবেক ছাত্র নেতা সাইফুজ্জামান শিখর, যুব লীগের ফারুক হোসেন, আব্দুস সাত্তার মাসুদ, আতাউর রহমান আতা, মাইনুল হোসেন খান নিখিল, ৭১ টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাংবাদিক মোজাম্মেল বাবু, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শাবান মাহমুদ প্রমুখ।