গাজীপুরে স্বামী হত্যায় স্ত্রী ও প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড

97
Smiley face

গাজীপুরের টঙ্গীর সাতাইশ এলাকায় পরকিয়া সম্পর্কের জের ধরে স্বামী আব্দুল হান্নান হত্যা মামলায় স্ত্রী ও তার সহযোগী প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া তাদের ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে গাজীপুরের অতিরিক্ত দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক মো. ইকবাল হোসেন এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- নিহত আব্দুল হান্নানের স্ত্রী নাজমা বেগম ও ঝিনাইদহের সোনাতনপুর এলাকার আব্দুল বারেজ বিশ্বাসের ছেলে মান্নান হুসাইন।

আদালত ও মামলা সূত্রে জানা যায়, টঙ্গীর সাতাইশ এলাকায় মোসলেম উদ্দিনের বাড়ির দ্বিতীয় তলায় ভাড়া থাকতেন হান্নান ও তার স্ত্রী নাজমা বেগম। ওই বাড়িতে দণ্ডপ্রাপ্ত মান্নান হুসাইনও ভাড়া থাকতেন। এক পর্যায়ে মান্নান হুসাইনের সঙ্গে নাজমা বেগমের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি জানাজানি হলে হান্নান তার স্ত্রীকে এ নিয়ে সতর্ক করেন এবং মান্নানকে ওই বাসা থেকে চলে যেতে বলেন। এরই জের ধরে ক্ষিপ্ত হয়ে ২০১২ সালের ২৭ জানুয়ারি রাতে নাজমা বেগম ও মান্নান হুসাইন পরস্পর যোগসাজসে আব্দুল হান্নানকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে।

পরদিন পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই আব্দুল মান্নান বাদী হয়ে টঙ্গী থানায় মামলা দায়ের করে। পরে ২০১২ সালের ১১ জুন ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে নাজমা ও মান্নান হুসাইনের বিরুদ্ধে পুলিশ আদালতে চার্জশিট (অভিযোগ) দাখিল করে। দীর্ঘ শুনানি ও ১৩ জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত মঙ্গলবার এ রায় দেন।

গাজীপুর আদালত পরিদর্শক ইন্সপেক্টর মো. রবিউল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে বলেন, রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্তরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। এ রায়ে রাষ্ট্রপক্ষ সন্তোষ প্রকাশ করেন।