গবেষণার জন্য দেয়া হবে না আলির মস্তিষ্ক

কিংবদন্তী বক্সার মোহাম্মদ আলির মৃত্যুর আগে থেকেই শোনা গিয়েছিল তার মস্তিষ্ক দান করা হবে গবেষণার জন্য; কিন্তু তার মৃত্যুর পর যখন সেই প্রশ্ন এল তখন মোহম্মদ আলির ডাক্তার সাফ জানিয়ে দিলেন তেমন কোনও পরিকল্পনা আলি কিংবা তার পরিবারের ছিল না।

ডাক্তার আবে লিবারম্যানকে যখন ওই বিষয়ে জানতে চাওয়া হয় তখন তিনি বলেন, ‘একদমই তেমন কথা ছিল না।’ লিবারম্যান আরও বলেন, আলি কখনওই মনে করতেন না যে, পার্কিনসন্সের জন্য তার বক্সিং পুরোপুরি দায়ী। লিবারম্যান সেই ডাক্তার যিনি ১৯৮৪তে আলির রোগ ধরেছিলেন। ডাক্তার জানিয়েছেন, আলির এই রোগ অনেক আগে থেকেই ছিল।

১৯৮০তে ল্যারি হোমসের সঙ্গে বাউটের সময় মাথায় আঘাত পেয়েছিলেন মহম্মদ আলি। ভাবা হত তার পর থেকেই আলির পার্কিনসন্স দেখা দেয়। আলি নিজেও তেমনটাই মনে করতেন। যদিও ডাক্তারের দাবি ছিল ভিন্ন।