এজলাসে বিচার লাইভ দেখানোর সিদ্ধান্ত ভারতের সুপ্রিম কোর্টের

এজলাসে বিচার প্রক্রিয়া সরাসরি সম্প্রচারে সম্মতি জানালেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। এজলাসের ভিতর কী চলছে তা জানার অধিকার রয়েছে নাগরিকের।

বিচার প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতা আনতে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট জানায়, সূর্যের আলো যেমন জীবাণুনাশকের কাজ করে, সরাসরি সম্প্রচারও বিচার ব্যবস্থাকে তরান্বিত করবে।

বুধবার আধার কার্ডের রায়ের দিনেই এজলাসের লাইভ সম্প্রচারের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ পর্যবেক্ষণ দেয় প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের বেঞ্চ।

বিচারপতি দীপক মিশ্র বলেন, ‘এজলাসে লাইভ সম্প্রচার হওয়া উচিত। এর ফলে গোটা বিচার ব্যবস্থার মধ্যে দায়বদ্ধতা তৈরি হবে।’ তবে ৭০ সেকেন্ড দেরিতে সরাসরি সম্প্রচারে প্রস্তাব রাখা হয়েছে। যদি এজলাসের মধ্যে কোনও অবমাননাকর ঘটনা ঘটে তাহলে বন্ধ করে দেয়ার ক্ষমতা থাকবে বিচারপতিদের হাতে।

জি নিউজ জানায়, গত জুলাইয়ে এক শুনানিতে বিচারপতি দীপক মিশ্র বলেছিলেন, সরাসরি সম্প্রচারের মাধ্যমে বিচার সংক্রান্ত বিষয়ে সাধারণ নাগরিককে অবগত করা যেতে পারে। এমনকি মামলাকারীরাও বিভিন্ন মামলার বিষয়ে জানতে পারেন।

মামলাকারীদের আইনজীবী কীভাবে মামলা লড়বেন, সে বিষয়ে ধারণাও তৈরি হতে পারে তাদের। তবে ধর্ষণ এবং বিবাহ সংক্রান্ত মামলার ক্ষেত্রে সরাসরি সম্প্রচার না হওয়ার পক্ষে সওয়ালও করেন তিনি।

প্রধান বিচারপতির কথায়, ‘যারা আইনি নিয়ে পড়াশুনা করছেন, তাদের কাছে এই সম্প্রচার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে।’

লাইভ সম্প্রচারের বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেন প্রবীণ আইনজীবী ইন্দিরা জয় সিং, আইনের ছাত্র স্নেহিল ত্রিপাঠী এবং রয়েছে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘সেন্টার ফর অ্যাকাউন্টাবিলিটি অ্যান্ড সিস্টেমেটিক চেঞ্চ’-ও।