উপস্থাপনায় নতুন মাত্রা পূর্ণিমার

আগামী ৮ জুলাই ২০১৬ সালের ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার’ প্রদান করা হবে। এবারের অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করবেন চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা। তার সঙ্গে থাকবেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুরস্কার প্রাপ্তদের হাতে পদক তুলে দেবেন। পূর্ণিমা বলেন, ‘চলচ্চিত্র বিষয়ক যে কোনো অনুষ্ঠানে অংশ নিতে আমার ভালো লাগে। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার এই মাধ্যমের শিল্পীদের জন্য সেরা স্বীকৃতি। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করতে নিশ্চয়ই আমার ভালো লাগবে।’ চিত্রনায়ক ফেরদৌস বলেন, ‘এবারের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অনুষ্ঠানে উপস্থাপনা করব আমি এবং পূর্ণিমা। আমি তৃতীয়বারের মতো অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করছি। এই অনুষ্ঠানের উপস্থাপনা অনেক সম্মানের। আর পূর্ণিমার সঙ্গে উপস্থাপনা করতে ভালোই লাগে। এই অনুষ্ঠানের বাইরে আগামী ৩০ জুন মালয়েশিয়ায় একটি ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানেও আমি এবং পূর্ণিমা অংশ নেব। এজন্য ২৭ জুন মালয়েশিয়ায় রওনা করব আমরা। বাংলাদেশ থেকে কণ্ঠশিল্পী আইয়ুব বাচ্চু, ইমরানসহ আরো কয়েকজনের যাওয়ার কথা রয়েছে। তথ্যমন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানিয়েছে, এবারের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অনুষ্ঠানটির সাংস্কৃতিক পর্বের সময় থাকবে ৪৫ মিনিট। শুরুটা হবে অর্কেস্ট্রা পরিবেশনার মধ্যদিয়ে। থাকবে সাদিয়া ইসলাম মৌয়ের নাচ। এই নাচের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের বিবর্তন ও সরকারের উন্নয়নের বিষয়টি তুলে ধরা হবে। পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানের পর বিভিন্ন পরিবেশনায় অংশ নেবেন চলচ্চিত্রের শিল্পীরা।