রাজশাহী প্রতিনিধি : রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (আরডিএ) আবাসিক প্লট বরাদ্দের নামে হরিলুটের প্রতিবাদ ও প্লট কেলেঙ্কারীর মুল হোতা আরডিএ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ বজলুর রহমানের অপসারনের দাবিতে রাজশাহীতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। রবিবার সকাল ১০টা থেকে দুই ঘন্টাব্যাপী নগরীর সাহেব বাজার জিরো পয়েন্টে রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের ব্যানারে কর্মসূচি পালন করা হয়। এতে নগরীর বিভিন্ন পেশাজীবী, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।
রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাংগাঠনিক সম্পাদক দেবাশিষ প্রমানিক দেবু বলেন, রাজশাহীকে পরিকল্পিত নগরী হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষে ১৯৭৮ সালে গঠন করা হয় রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। তবে দীর্ঘ চার দশকেও এ প্রতিষ্ঠান মানুষের আশা-আকাঙ্খার প্রতিফলন ঘটাতে পারেনি। ধারাবাহিকভাবে লুটপাট করা হয়েছে। সর্বশেষ প্লট বরাদ্দের নামে নজির বিহীন কেলেঙ্কারী করেছে খোদ এ প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান বজলুর রহমান।
৬ কাঠা, ৫ কাঠা, ৪ কাঠার সব মুল্যবান প্লটগুলি হাতিয়ে নিয়েছে আরডিএর’র চেয়ারম্যান বজলুর রহমান ও এষ্টেট অফিসার বদরুজ্জামানসহ সংস্থাটির শীর্ষ কর্মকর্তারা। ধারাবাহিক প্লট কেলেংকারি ও নজীরবিহীন নিয়োগ দুর্নীতি ছাড়াও আরডিএ’র অভ্যন্তরে চলমান দুর্নীতি অনিয়মের কারণে সরকারি এ সংস্থাটি ব্যাপক আলোচনায় এসেছে। দূর্নীতির চিত্র তুলে ধরে বিভিন্ন গনমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিকদের ফৌজদারি ও দেওয়ানী মামলার হুমকি দিয়ে উকিল নোটিশ পর্যন্ত পাঠানো হয়েছে।
তিনি বলেন, নিজের নজিরবিহীন দুর্নীতি ঢাকতে চেয়ারম্যান বজলুর রহমান সাংবাদিকদের প্রতিপক্ষ ভেবে তাদের বিরুদ্ধে নেমেছেন। তাই অবিলম্বে দূর্নীতিবাজ আরডিএ চেয়ারম্যানের অপসারণ দাবি করে তার বিরুদ্ধে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশানসনের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।
রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি লিয়াকত আলীর সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক জামাত খান, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ডা. আব্দুল মান্নান, রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের (আরইউজে) সভাপতি কাজী শাহেদ, এডভোভোকেট এন্তাজুল হক বাবু, মহিলা পরিষদ রাজশাহীর সভাপতি কল্পনা রায়, নারী শিল্প উদ্যোক্তা চেয়ারম্যান সেলিনা বেগম, বেনেতি ব্যবসায়ী সমিতির সহসভাপতি মহেষ চন্দ্র সরকার ও রাজশাহী মুক্তিযোদ্ধা মে র সভাপতি আবদুল মতিন প্রমুখ।