আবেগের জায়গায় খোঁচানো বন্ধ করা উচিত।

টলিউডের দর্শক প্রিয় অভিনেত্রীদের একজন মিমি চক্রবর্তী। অভিনয় দক্ষতা ও গ্লামার দিয়ে বেশ কিছু ব্যবসা সফল ছবি উপহার দিয়েছেন মিমি। সম্প্রতি স্থানীয় গণমাধ্যমে বিয়ে নিয়ে খোলাখুলি কথা বলেছেন তিনি।

মিমি বলেন, ‘বিশ্বাস করুন বিয়ে নিয়ে ভাবছি না। এখন ক্যারিয়ারের যে জায়গায় আছি, সেখানে আমার ক্র্যাফট, আমার পারফরম্যান্স- এগুলো নিয়েই ভাবছি। কারণ লোকে আমাকে যেটুকু চেনে, যতটুকু ভালোবাসে তা আমার কাজের জন্য। এটা না থাকলে তো আই ওয়াজ অ্যা নোবডি।’

প্রসঙ্গত, টলিউডের জনপ্রিয় সিনেমা ‘বোঝে না সে বোঝে না’। ২০১২ সালে মুক্তি পায় এটি। মিমি চক্রবর্তী অভিনীত এ সিনেমাটি পরিচালনা করেন টলিউডের গুণী নির্মাতা রাজ চক্রবর্তী। এ সিনেমা করতে গিয়েই মিমি ও রাজের মধ্যে প্রেমের সূত্রপাত ঘটে।

মিমির সঙ্গে সম্পর্কের শেষ হতেই শুরু হয় রাজ-শুভশ্রী অধ্যায়। ‘অভিমান’ সিনেমার শুটিং সেটে নাকি রাজ-শুভশ্রীর ঘনিষ্ঠতা বাড়তে শুরু করে। গত ১১ মে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন তারা। বর্তমানে ব্যক্তিগত জীবনে মিমি চক্রবর্তী সিঙ্গেল এবং কাজ নিয়েই ব্যস্ত সময় পার করছেন। যদিও কিছুদিন আগে গুঞ্জন ওঠেছিল, যশ দাশ গুপ্তর সঙ্গে প্রেম করছেন মিমি।

ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে করা এক প্রশ্নের উত্তরে মিমি বলেন, ‘আমি কখনোই নিজের ব্যক্তিগত স্পেস নিয়ে কারো কাছে গল্প করতে যাই না। বেশির ভাগ সময় দেখেছি লেখা হয়, মিমি নাকি এ রকম করেছে। কিন্তু কোনো নিউজের কোথাও আমার বক্তব্য পাবেন না। কিন্তু মানুষ ধারণা করে নেয় আমি এমনটা করেছি। এর ফলে আমার বাড়ির লোক ভীষণ চিন্তায় পড়ে যান। কারণ আমি এমন একটা পরিবার থেকে এসেছি, যেখানে রাত ১০টা বাজলেই মা ফোন করে জিজ্ঞেস করেন, আমি কোথায় আছি, শুটিং শেষ হয়েছে কি না। ফলে উল্টোপাল্টা সাক্ষাৎকার প্রকাশ পেলে দশটা ফোন আর কুঁড়িটা মেসেজের যে ট্রমা, সেটা সাংঘাতিক! আমার মতে, আবেগের জায়গায় খোঁচানো বন্ধ করা উচিত।’