আগাম নির্বাচনের সম্ভাবনা দেখছেন এরশাদ

আগাম নির্বাচনের সম্ভাবনা রয়েছে বলে মনে করেন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তিনি বলেছেন, তার দল নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত রয়েছে।

রোববার রাজধানীর বনানীতে নিজ কার্যালয়ে জাপা নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত জাতীয় জোটের (ইউএনএ) লিয়াজোঁ কমিটির বৈঠকে এরশাদ এ কথা বলেন।

আগামী ২৪ মার্চ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে মহাসমাবেশ করবে জাপা। এ কর্মসূচির প্রস্তুতির অংশ হিসেবেই ৫৮ দলীয় জোট ইউএনএর লিয়াজোঁ কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে জোটের একমাত্র নিবন্ধিত শরিক দল ইসলামী ফ্রন্ট এবং দুই মোর্চা; ইসলামী মহাজোট ও জাতীয় জোটের নেতারা অংশ নেন।

চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি সম্পর্কে এরশাদ বলেন, এখন রাজনীতিতে অস্থির অবস্থা বিরাজ করছে। কিন্তু জাপায় অস্থিরতা নেই। সম্মিলিত জোট ভালো আছে।

বৈঠক সূত্র জানায়, এরশাদ মনে করেন, আগেভাগেই নির্বাচন হতে পারে। বিএনপিকে অপ্রস্তুত অবস্থায় রেখে, আগাম নির্বাচন দিতে পারে সরকার। তাই তিনি বৈঠকে বলেন, নির্বাচন আর দূরে নেই। এখন থেকেই প্রস্তুতি শুরু করতে হবে। আর মার্চের মহাসমাবেশে লাখো মানুষ জমায়েত করে ভোটের প্রচার শুরু করবেন।

বৈঠকের পর জাপা মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও দেশের সার্বিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়। জাপা নেতৃত্বাধীন জোট আগামী নির্বাচনে এককভাবে ৩০০ আসনে প্রার্থী দেবে। তৃণমূলের মতামত নিয়ে প্রার্থী যাচাই-বাছাই চলছে। জাপা মহাসচিব আরও বলেন, উন্নয়নের স্বার্থে কখনও কখনও সরকারে থাকাটা বাঞ্ছনীয় হয়ে ওঠে। সংসদে জাতীয় পার্টি কী ভূমিকা পালন করছে, তাও দেখার বিষয়।