প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘কনফারেন্স অব দ্য পার্টিস (কপ-২২)’এর উচ্চ পর্যায়ের দুইটি কর্মসূচিতে যোগদানের উদ্দেশ্যে তিনদিনের সফরে সোমবার মরক্কোর মারাক্কেশ-এর উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেন।
বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইট (বিজি- ১০১৯) প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর সফরসঙ্গীদের নিয়ে সোমবার সকাল ১০টায় মরক্কোর পশ্চিমাঞ্চলে দেশটির সাবেক রাজকীয় শহর মমারাক্কেশ-এর উদ্দেশ্যে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করবে।
প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর সফরসঙ্গীদের নিয়ে ফ্লাইটটি ওইদিন স্থানীয় সময় বিকাল সাড়ে ৪টায় মারাক্কেশ-এর মেনারা বিমানবন্দরে পৌঁছাবে।
বিমানবন্দরে এসে পৌঁছানোর পরে প্রধানমন্ত্রীকে মোটর শোভাযাত্রা সহকারে হোটেল লা মামৌনিয়া-তে নিয়ে যাওয়া হবে। মরক্কো সফরকালে তিনি সেখানেই অবস্থান করবেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৫ নভেম্বর ‘কনফারেন্স অব দ্য পার্টিস (কপ-২২)’-এর উচ্চ পর্যায়ের সভায় জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বাংলাদেশের অবস্থান তুলে ধরবেন এবং জাতীয় ও যৌথভাবে এই বিরাট চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় কাজের গতি ত্বরান্বিত করার জন্য বিশ্ব নেতৃবৃন্দের প্রতি আহবান জানাবেন।
একইদিন অন্যান্য দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও মরক্কোর বাদশাহ ৬ষ্ঠ মোহাম্মদের দেওয়া ভোজসভায় যোগদান করবেন।
তিনদিনের সফর শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৬ নভেম্বর দেশে ফিরবেন।
মরক্কোর মারাক্কেশ-এর বাব ইগলিতে ৭ নভেম্বর শুরু হওয়া ‘কনফারেন্স অব দ্য পার্টিস (কপ-২২)’ হচ্ছে গত বছরের ডিসেম্বরে ‘কপ-২১’-এ ঐতিহাসিক প্যারিস চুক্তি গৃহিত হওয়ার পর এ ধরনের প্রথম সভা।
অন্যদিকে, ‘বুদাপেস্ট পানি সম্মেলন- ২০১৬’-এ যোগদান উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২৮ থেকে ৩০ নভেম্বর হাঙ্গেরি সফর করবেন।
‘ওয়ার্ল্ড ওয়াটার কাউন্সিল’-এর সহযোগিতায় হাঙ্গেরি সরকার তিনদিন ব্যাপি এই সম্মেলনের আয়োজন করবে।সূত্র:বাসস