অ্যাপলের চমক : এল আইফোন ৮, ৮ প্লাস, টেন

0
81

প্রযুক্তি বিশ্ব অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিল মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যাপলের নতুন আইফোনের। আইফোন বাজারে আনার দশ বছর পূর্তি স্মরণীয় করে রাখার সব আয়োজন করে রেখেছিল প্রতিষ্ঠানটি। অনেকেই ধরে নিয়েছিল ‘চমক’ দেবে অ্যাপল। নতুন আইফোনের নাম নিয়েও ছিল জল্পনা কল্পনা। ১২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় এক জমকালো অনুষ্ঠানে নতুন আইফোনের ঘোষণা দিল অ্যাপল। নতুন আইফোনের নাম দেওয়া হয়েছে আইফোন ৮ ও ৮ প্লাস। এ ছাড়া চমক হিসেবে এসেছে আইফোন টেন (আইফোন এক্স)।
নতুন আইফোনে ব্যবহার করা হয়েছে এ১১ বায়োনিক প্রসেসর। অ্যাপল একে বলছে সবচেয়ে শক্তিশালী ও উন্নত চিপ, যা আগের চেয়ে ৭০ শতাংশ দ্রুতগতির। ৬ কোর সিপিইউ এবং ৩০ শতাংশ উন্নত গ্রাফিকস পাওয়া যাবে এতে। আইফোন ৮–এর পেছনে ১২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। এতে সম্পূর্ণ নতুন সেন্সর ব্যবহৃত হয়েছে, যাতে ৮৩ শতাংশ বেশি আলো যাবে, গভীর পিক্সেল ও প্রশস্ত রেঞ্চ পাওয়া যাবে। আইফোন ৮ প্লাসে ১২ মেগাপিক্সেল ডুয়াল সেন্সর ও অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজার (ওআইএস) সুবিধা থাকছে। আইফোন ৮ এ অগমেন্টেড রিয়্যালিটি যুক্ত করেছে অ্যাপল।
সিলভার, স্পেস গ্রে ও গোল্ড—এ তিন রঙে বাজারে পাওয়া যাবে আইফোন ৮। আইফোন ৮–এর মাপ ৪ দশমিক ৭ ইঞ্চি আর আইফোন ৮ প্লাসে সাড়ে পাঁচ ইঞ্চি মাপের ডিসপ্লে রয়েছে। দুটি মডেলের আইফোনে যুক্ত হয়েছে ওয়্যারলেস বা তারহীন চার্জিং প্রযুক্তি।
৩২ জিবি, ২৫৬ জিবি ও ৫১২ জিবি স্টোরেজ মডেলে বাজারে আসবে আইফোন ৮। আইফোন ৮–এর দাম শুরু হবে ৬৯৯ মার্কিন ডলার ও আইফোন ৮ প্লাসের দাম শুরু হবে ৭৯৯ মার্কিন ডলার থেকে। ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে আইওএস ১১ অপারেটিং সিস্টেমের নতুন সংস্করণ পাওয়া যাবে।
অ্যাপলের চমক হিসেবে আসা আইফোন টেন স্টেইনলেস স্টিল ও গ্লাসের সমন্বয়ে তৈরি। সিলভার ও গ্রে—এ দুটি রঙে বাজারে আসবে আইফোন টেন। ৫ দশমিক ৮ ইঞ্চি মাপের সুপার রেটিনা ডিসপ্লে ব্যবহৃত হয়েছে এতে। ফোনটিতে সিরি সফটওয়্যারের বিশেষ ব্যবহার সুবিধা ও ফেস আইডি ফিচার এসেছে। এতে যুক্ত হয়েছে ট্রু ডেপথ ক্যামেরা সিস্টেম। এ১১ বায়োনিক চিপসেট ছাড়াও এতে নিউরাল ইঞ্জিন যুক্ত হয়েছে।

LEAVE A REPLY